New Muslims APP

প্রশ্নোত্তরের আলোকে যাকাতের মাসআলা

FlatShop Bangladesh-Dhaka

  জায়গা, প্লট বা প্লট কিনলে তার যাকাত দিতে হবে কি ?

  উত্তর  – যদি কেউ জমি বা প্লট ইত্যাদি কিনে তাহলে কেনার সময় তার নিয়ত তিন রকমের হতে পারে। ১. এখন কিনে পরে সুবিধামত বিক্রি করে দেব। এমতাবস্হায় প্রতি বছর তার যে বাজার মূল্য হবে তার উপর যাকাত দিতে হবে। ২. নিজে বাড়ি বানিয়ে বসবাস করব,তাহলে তাকে যাকাত দিতে হবে না। ৩. খরিদ করার সময় কোনটার নিয়ত করেনি তাহলে ও যাকাত দিতে হবে না। ( আপকে মাসায়িল.৩৭১)

ডেকোরেশনের উপর যাকাত আসবে কি?

উত্তরঃ- দোকানে,অফিসে যে সব ডেকোর করা হয় সেগুলো যতই দামি হোক না কেন তার উপর যাকাত দিতে হবে না। কেননা সেগুলো ব্যবসার মাল না। তবে ফার্ণিচারের দোকানে ব্যবসার জন্য যে আলমারী,শোকেছ ইত্যাদি রাখা হয়সেগুলোর কিন্তু’ যাকাত দিতে হবে। অনুরুপ ডেকোরেশনের দোকানে লাখ লাখ টাকার সামানা থাকে সেগুলোর উপর ও কোন যাকাত আসবেনা বরং সেগুলো ভাড়া খাটিয়ে যে মুনাফা অর্জিত হয় সে গুলোর উপর শর্তসাপেক্ষে যাকাত আদায় করতে হবে। তদুরুপভাবে প্রিন্টিং প্রেস,কলকারখানার মূল্যবান যন্ত্রপাতির উপর ও কোন যাকাত আসবে না। কেননা সেগুলো আয়ের মাধ্যম। তবে সেগুলোর ব্যবসা করা হলে শর্ত সাপেক্ষে তার যাকাত দিতে হবে। ( মাসায়িলে যাকাত-১৩/৫৩)

  গাড়ির যাকাত দিতে হবে কিনা ?
 উত্তর   ভাড়ায় খাটিয়ে মুনাফা অর্জনের জন্য যে গাড়ি ক্রয় করা হয় সেগুলোর উপর কোন যাকাত দিতে হবে না। বরং সেগুলোর মাধ্যমে যে মুনাফা অর্জিত হবে সেগুলোর উপর শর্তসাপেক্ষে যাকাত দিতে হবে। আর যদি ব্যবসার জন্য গাড়ি ক্রয় করা হয় তাহলে সেগুলোর উপর যাকাত আসবে। ( আপকে মাসায়েল-  ৩৭৬)

 যাকাতের টাকা দিয়ে গরীবের ঘর মেরামত করা কেমন ?
উত্তরঃ- যাকাতের টাকা দিয়ে গরীবের ঘর মেরামত করার চেয়ে টাকাটা তার হাতে তুলে দিলেই যাকাত আদায়ের ব্যাপারে আর কোন আশংকা থাকে না। অনুরুপ গরীবের মেয়ের বিয়েতে খরচ করার চেয়ে তাদের হাতে টাকাটা তুলে দিলেই ভাল হয়। মোট কথা যাকাত আদায় হওয়ার জন্য শর্ত হল হকদার কে যাকাতের মালিক বানিয়ে দেওয়া। অনুরুপ গরীব কে ঔষধ ক্রয় করে দিলে কিংবা চিকিৎসা ফি দিলে ও যাকাত আদায় হয়ে যাবে। ( ফ.দারুল উলুম-৬/২৪১)

 যাকাতের টাকা দিয়ে মাদ্রাসার কিতাব ক্রয় করা কেমন ?
 উত্তরঃ- যাকাত আদায় হওয়ার জন্য শর্ত হল মালিক বানিয়ে দেওয়া। মাদ্রাসায় কিতাব ক্রয় করে দিলে তা মাদ্রাসায় ওয়াকফ হয়ে যায়,কারো ব্যক্তিগত মালিকানাধীন থাকে না বলে যাকাত আদায় হবে না। যাকাত আদায় হওয়ার জন্য কোন ছাত্রকে কিতাবের মালিক বানিয়ে দিতে হবে। (দারুল উলুম/৬/২৬২)

 যাকাতের টাকা দ্বারা বেতন দেওয়া যাবে কি ?
উত্তরঃ- না যাকাত আদায় হবে না। তবে বেতন দেওয়ার পর কর্মচারী যদি হকদার হয় বখশিশ হিসাবে যাকাত দিতে পারবে। (আলমগিরী- ১৯০)

 যাকাত আদায় করার সময় নিয়ত না করলে কি করবে?
 উত্তরঃ- যাকাতের জন্য বড় শর্ত হল নিয়ত। যদি যাকাতের মাল পৃথক করার সময় নিয়ত করে তাহলে ও যতেষ্ট হবে। আর যদি নিয়ত করতে ভূলেযায় তাহলে যতক্ষণ উক্ত মালগ্রহীতার হাতে থাকবে ততক্ষণ নিয়ত করার সুযোগ থাকবে। নতুবা যাকাত আদায় হবে না। ( দারুল উলুম-৬/৭৯)

 মামলা মুকাদ্দমায় যাকাতের টাকা ব্যয় করা যাবে কি ?
উত্তরঃ- যার মামলা পরিচালনা করা হচ্ছে সে যদি যাকাত নেওয়ার হকদার হয় তাহলে তার মামলা পরিচালনার কাজে যাকাতের টাকা ব্যয় করা যাবে। ( মাহমুদিয়া-৩/৫২)

একান্নবর্তী পরিবারের যাকাত কিভাবে আদায় করতে হবে ?
 প্রশ্নঃ- এক পরিবারে চার ভাই একসাথে থাকে,খাওয়া দাওয়া সব একসাথে হয়,কিন্তু’ সকলের কামাই ভিন্ন ভিন্ন। তাদের প্রত্যেকের স্ত্রীর নিকট দুই আড়াই ভরি করে স্বর্ণ আছে যা একত্রিত করলে সাড়ে সাত ভরি থেকে বেশি হয়ে যাবে। এমতাবস্হায় তাদের অলংকারের যাকাত আদায় করতে হবে কি ?
উত্তরঃ- মনে রাখতে হবে যে যাকাতের নেসাবের ক্ষেত্রে প্রত্যেকের আলাদা আলাদা মালিকানা শর্ত। আলোচ্য মাসআলায় কারো নিকট আলাদাভাবে নিসাব পরিমাণ অলংকার নেই। সুতরাং ঐ সব মহিলাদের যদি আর কোন মাল না থাকে যার উপর যাকাত ফরয হয় তাহলে অলংকারের কারণে তাদের উপর যাকাত আসবে না।
অনুরুপ যৌথ পরিবারেও বছর শেষে মাল ভাগ করে প্রত্যেকের ভাগে নিসাব পরিমান মাল বেঁচে থাকলে যাকাত আসবে। নতুবা নয়। ( আপকে মাসায়িল  …….৩/৩৪৯)

মাছ চাষ করলে কিংবা মুরগীর ফার্ম বা গরুর খামার স্থাপন করলে যাকাত আসবে কি ?
উত্তরঃ- সরাসরি মাছ বা মুরগী-গরু ব্যবসার জন্য রাখা হলে সেগুলোর উপর শর্ত সাপেক্ষে যাকাত আসবে। সেগুলোর বাচ্চা বা কেবল ডিম ব্যবসার নিয়ত করলে সেগুলোর যাকাত দিতে হবে না। (আহসানুল ফতওয়া-৪/৩০০)
প্রশ্নঃ- একজন লোকের নিকট বছর শেষে সব খরচ বাদ দিয়ে দশ হাজার টাকা থাকে এমতাবস্হায় তার উপর যাকাত আসবে কি ?
উত্তরঃ- দশ হাজার টাকার সাথে যদি এক দুই ভরি স্বর্ণ ও থাকে তাহলে অলংকারের দাম নগদ টাকার সাথে মিলিয়ে যদি সাড়ে বায়ান্ন তোলা চাঁন্দি কেনা যায় তাহলে তার উপর যাকাত আসবে। ( আপকে মাসায়িল আওর..৩/৩৫৬)
প্রশ্নঃ- একজন লোকের নিকট পাঁচ লক্ষ টাকা আছে। সে ব্যাংক থেকে দশ লক্ষ টাকা লোন নিয়ে বাড়ি নির্মাণ করল,এখন তার সে পাঁচ লাখের উপর যাকাত আসবে কিনা ?
উত্তরঃ- এ ব্যাপারে শরীয়তের উসূল হল,কর্জ পরিশোধ করার পর অবশিষ্ট টাকা যদি নিসাব পরিমাণ হয় তাহলে তার উপর যাকাত আসবে। আর যদি কর্জ মূল টাকা থেকে বেশি হয়ে যায় তাহলে যাকাত আসবে না। ( আপকে মাসায়িল..৩/৩৯৯) 

1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...

Leave a Reply


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.